হাথুরুসিংহে বিদায়ে হতাশ নয় রিচার্ড হ্যালসল

ত্রিদেশীয় সিরিজ হবে বাংলাদেশে । কিন্তু ঝড় যেন থামছেই না। সবার নজর  সব কথা চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে কে নিয়ে। কারন একটাই বাংলাদেশ এর সাবেক কোচ ছিলেন হাথুরুসিংহে আর তিনি এখন শ্রীলঙ্কার কোচ। বাংলাদেশের চাকরি থেকে অব্যাহতি নিয়ে চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে  প্রথম সফরেই বাংলাদেশে আসছেন শ্রীলঙ্কান কোচ হিসাবে।এই জন্য খেলাটা হবে হাথুরু বনাম বাংলাদেশ। তাঁকে ছাড়া বাংলাদেশ দল কেমন করে,সবার মনে জাগছে একি প্রশ্ন। দলের ফিল্ডিং কোচের অবশ্য দাবি, হাথুরু যাওয়াতে কিছুই হবে না বাংলাদেশের।

রিচার্ড হ্যালসল আজ কথা বলেছেন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে বাংলাদেশ এর প্রতি তার আত্তবিশ্বস অনেক বেশী। হ্যালসল অবশ্য মূল কোচের বিদায়টা কে বড় করে দেখছেন না, ‘কৌশল-পরিকল্পনা খুবই ছোট। যদি ভালো খেলোয়াড় থাকে, তারাই ক্রিকেট ম্যাচ জেতাতে পারে। মূল কোচ চলে যাওয়া বড় খেলোয়াড় যাওয়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ নয়। আমাদের বড় কোনো খেলোয়াড় যায়নি, তরুণ খেলোয়াড়ও কেউ যায়নি, শুধু কোচই গেছেন। শ্রীলঙ্কার জন্য কাজটা বরং কঠিন, কারণ ওরা বেশ কিছু খেলোয়াড় হারিয়েছে। বিশেষ করে কুমার সাঙ্গাকারা, মাহেলা জয়ওয়াধেন। আমাদের সে সমস্যা নেই। আমরা গোছানো এক দল এবং খেলোয়াড়েরা সিরিজের অপেক্ষায়।’

হেড কোচের বিদায় বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্যই আর  ভালো কিছু হবে বলে মনে করেন ফিল্ডিং কোচ হ্যালসল। তাঁর দাবি পেয়ে সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মুর্তজারা আরও ভালো করবেন অ আর মনযোগী হবেন।, ‘চণ্ডিকার চলে যাওয়ার মূল কারণ ছিল, তাঁর মনে হয়েছে ক্রিকেটারদের আর কিছু দেওয়ার নেই। আমার মনে হয়, এটা তো ক্রিকেটারদের জন্য ভালো। এখান সাকিব ও মাশরাফির মতো অধিনায়ক আছে বাংলাদেশ টীম এ। মুশফিক, রিয়াদ ও তামিম আছে আর মুস্তাফিজুর রাহমান ও তারা তারি সেরে ঊটবেন । । চণ্ডিকা এর কথা মত খেলেছে ক্রিকেটাররা । চণ্ডিকা যেমন চাইত, তারা তেমন খেলেছে। কিন্তু এখন তারা অনেক কিছু শিখেছে। আর যত বয়স হয়, তত দায়িত্ব নিতে শেখে। আমার তো মনে হয় অভিজ্ঞ ও নতুন ক্রিকেটারদের জন্য খুবই রোমাঞ্চকর এক সময় এটা।’

Leave a Reply